• শিরোনাম

    আখাউড়ায় পরকিয়া করতে গিয়ে ধরা পরলো প্রেমিক ও প্রেমিকা

    মো: সাইফুল ‍ইসলাম, বিশেষ সংবাদদাতা, ‍আখাউড়া: | বুধবার, ০৬ নভেম্বর ২০১৯ | পড়া হয়েছে 119 বার

    আখাউড়ায় পরকিয়া করতে গিয়ে ধরা পরলো প্রেমিক ও প্রেমিকা

    আখাউড়ায় পরকিয়া করতে গিয়ে ধরা পরলো প্রেমিক ও প্রেমিকা

    পরকিয়া প্রেমের অভিসারে গিয়ে ধরা পরলো বিবাহিত সন্তানের জনক প্রেমিক ও প্রেমিকা। পরে উত্তম-মাধ্যম খেলেন দুজনেই। খবর পেয়ে পুলিশ উদ্ধার করে পরকিয়া প্রেমিকদ্বয়কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক ভার্তি করে।

    মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী ছোটকুড়িপাইক গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি করেছে।

    পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কুমিল্লার সালদা নদী গ্রামের উম্মে হাবিবার সঙ্গে আখাউড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী ছোটকুড়িপাইকা গ্রামের বাসিন্দা মতালিম মিয়ার ছেলে আঞ্জু মিয়ার সঙ্গে পাঁচ বছর পূর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের এক বছর পর তাদের ঘরে একটি ছেলে সন্তান জন্ম নেয়।

    আঞ্জু মিয়া আর্থিক স্বচ্ছলতার আশায় স্ত্রীকে বাড়িতে রেখে চার বছর পূর্বে কাতার প্রবাসে চলে যায়।
    এদিকে স্বামী প্রবাসে চলে যাওয়ার পর উম্মে হাবিবা এলাকার মাদকাসক্ত সবুজ মিয়ার সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। ঘটনা জানতে পেরে হাবিবার বাসুর ও বাড়ির লোকজন পরকিয়া প্রেমিকদ্বয়কে ওই পথ থেকে ফিরে আসতে

    একাধিকবার সতর্ক করে দেয়। কিন্তু কথায় আছে না, চোরে শোনেনা ধর্মের বাণী। তাদের নিষেধ অমান্য করে সবুজ গোপনে চালিয়ে যাচ্ছে তার পরকিয়া প্রেমের অভিসার।

    ঘটনার দিন মঙ্গলবার দিবাগত রাত একটার দিকে প্রেমিক সবুজ উম্মে হাবিবার ঘরে প্রবেশ করে।
    সবুজ ও হাবিবা পরকিয়া প্রেমে লিপ্ত হয়। এদিকে
    পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা বাড়ির লোকজন ঘরে প্রবেশ করে তাদেরকে হাতে-নাতে ধরে উত্তম-মাধ্যম দেয়।
    এতে উভয় গুরুতর আহত হয়। পরে আখাউড়া থানা পুলিশ রাতেই তাদের উত্তেজিত গ্রামবাসীর কবল থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
    এব্যাপারে সবুজের বাবা প্যারালাইসিসে আক্রান্ত খালেক খন্দকারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পরিকল্পিতভাবে ঘটনাটি সাজিয়ে ওরা আমার ছেলেকে ফাঁসিয়েছে।

    আখাউড়া থানার ওসি রসুল আহম্মদ নিজামী বলেন, পরকিয়া প্রেমিক সবুজকে আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে উম্মে হাবিবাকে তার পরিবারের কাছে সোর্পদ করা হয়।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ৩য় মেঘনা সেতু নির্মানে মতবিনিময় সভা

    ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | 3069 বার

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে nabinagar71.com