• শিরোনাম

    “একটি রাস্তা স্বপ্ন পূরণ করবে হাজারো কৃষক,শ্রমিক -জনতার”

    নিজস্ব প্রতিবেদক | মঙ্গলবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২ | পড়া হয়েছে 502 বার

    “একটি রাস্তা স্বপ্ন পূরণ করবে হাজারো কৃষক,শ্রমিক -জনতার”

    ছবিঃ নবীনগর ৭১ ডটকম

    একটি রাস্তার অভাবে হাজারও কৃষক,শ্রমিক, জনতার কৃষিকাজে ব্যাঘাত, উৎপাদিত পণ্য যথাসময়ে বাজারজাত করতে না পারা ও নদীর তীরবর্তী ০৪(চার) টি গ্রামের পাশে বহমান বেশ কয়েক টি প্রাকৃতিক মাছের জলমহাল থাকলেও যাতায়াতের অপ্রতুলতার কারণে  প্রকৃত মূল্য পায় না। কৃষক তাদের উৎপাদিত কৃষিজ পন্যের পণ্যের যথাযথ মূল্য না পেয়ে বারবার লোকসানের সম্মুখীন হচ্ছেন।ফলে কৃষি নিভর  এলাকার কৃষকরা কৃষি কাজে দিন দিন আগ্রহ হারাচ্ছেন।

     

     

    পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর দুঃখ দূরদশার কথা বিবেচনা করে অবশেষে স্থানীয় সংসদ সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিম বুলবুলের হস্তক্ষেপে সীমাহীন দুর্ভোগ থেকে রেহাই মিলতে যাচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার উরখুলিয়া, মনিপুর, রাজাপুর,ভৈরব নগর গ্রামবাসীর।

     

     

    পাঁচ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের নতুন একটি সড়ক নির্মাণের মধ্য দিয়ে অবহেলিত চার গ্রামের মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হতে যাচ্ছে। এর ফলে কৃষিক্ষেত্রেও নতুন দিগন্তের দ্বার উন্মোচিত হবে। পাশাপাশি সরকারী রাজস্ব প্রাপ্ত জলমহাল গুলো থেকেও সরকার আরো বেশি পরিমাণ রাজস্ব আহরণ করতে পারবেন।

     

     

    জানা গেছে, চার গ্রামের বেশিরভাগ মানুষেরই প্রধান পেশা কৃষি। এই ফসল দিয়েই চলে ওই গ্রামের মানুষের জীবন। যাতায়াত ব্যবস্থা না থাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হতো কৃষকরা। সেজন্য এই পাচ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো এলাকাবাসীর। বিষয়টি নবনির্বাচিত বিদ্যাকোট ইউপি চেয়ারম্যান জাকারুল হক ও সমাজ সেবক আব্দুল আওয়াল,ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ নবীনগর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য এবাদুল করিম বুলবুল এর নজরে আনেন। এরি প্রেক্ষিতে এমপি  এই সড়কটি নির্মাণে ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন ।

     

     

    সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিদ্যাকুট থেকে এই রাস্তাটি চারটি গ্রাম হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর নবীনগর উপজেলায় মিলিত হবে। সড়কটি প্রায় ১০ থেকে ১৫ ফুট উঁচু ও ২০ ফুট প্রশস্ত হবে। এ দিয়ে যে কোন পরিবহন চলাচল করতে পারবে। কৃষিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে রাখা সহ সড়কটি ব্যবহার করে বিল থেকে সুস্বাদু মাছ আহরণ করে আমিষের ঘাটতিও মিটবে গ্রামবাসীর।

     

     

    বিদ্যাকূট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম,সালাউদ্দিন বাবু ০৮ নং ওয়াড (মনিপুর) এর বর্তমান মেম্বার আব্দুল গফুর,সাবেক মেম্বার মোঃ জালাল,ডাঃ খোকন আচার্য,সহ গ্রামের বেশ কয়েকজন জানান, এ সড়ক নির্মাণের ফলে গ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ হবে। সড়কটি নির্মাণ হওয়ায় বদলে যাবে পুরো চারটি গ্রামের কৃষিচিত্র।এজন্য তারা এমপি, ইউপি চেয়ারম্যান সহ সংশ্লিষ্টদের কৃতজ্ঞতা জানান।

     

    ছবিঃউরখুলিয়া টু বিদ্যাকুট সংযোগ সড়ক ।

     

     

    বিশিষ্ট সমাজ সেবক আব্দুল আওয়াল বলেন, এই রাস্তাটি নির্মাণের জন্য এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো। অবশেষে এমপি মহোদয়ের একান্ত চেষ্টায় রাস্তাটি হতে যাচ্ছে। এতে করে এলাকার কৃষকরা বেশ উপকৃত হবেন। বিশেষ করে মানুষের জীবনমান পরিবর্তনে আমূল পরিবর্তন ঘটবে। এছাড়াও জেলা-উপজেলার সাথে সরাসরি সংযোগ স্থাপন হবে। এতে করে এই এলাকাটি একটি পর্যটন নগরী প্রতিষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন গ্রাম হবে শহর এ রাস্তাটি নির্মাণের ফলে সেটি প্রতিষ্ঠিত হবে।

     

     

    নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাকারুল হক নয়া শতাব্দীকে বলেন, আমার মূল লক্ষ হচ্ছে এই চাঁর গ্রামের রাস্তাটি উন্নয়ন করা।শুধু চাঁর গ্রাম নয় বিদ্যাকুট ইউনিয়ন কে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলা।মাননীয় সংসদ সদস্য এবাদুল করিম বুলবুল বলেছেন এই রাস্তাটির কাজ শুরু করে দিতে বর্তমানে আমি আমার নিজস্ব অর্থায়ন থেকে রাস্তাটির কাজ শুরু করেছি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    নবীনগরে প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যা

    ১৫ অক্টোবর ২০২০ | 919 বার

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে