• শিরোনাম

    কুমিল্লার মাসুম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শ্রেষ্ঠ ইউএনও

    জাহাঙ্গীর আলম ইমরুল | রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | পড়া হয়েছে 414 বার

    কুমিল্লার মাসুম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শ্রেষ্ঠ ইউএনও

    সংগ্রহীত

    কুমিল্লার কৃতীসন্তান মোহাম্মদ মাসুম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শ্রেষ্ঠ ইউএনও নির্বাচিত হয়েছেন।

    জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার- ২০১৮-১৯’এ ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলায় কর্মরত মোহাম্মদ মাসুম জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেলার স্বীকৃতি লাভ করেন।

    এই সম্মাননা প্যাকেজ-এ একটি সনদপত্র, একটি ক্রেস্ট ও প্রনোদনা হিসেবে এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ রয়েছে।

    রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় অবস্থিত ৫৬টি সরকারি দপ্তরের বিভাগীয় প্রধান, সকল উপজেলা চেয়ারম্যান, মেয়র, সকল ইউএনও এর উপস্থিতিতে জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন এ সম্মাননা ঘোষণা দেন।

    এই সম্মাননা লাভের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি সৃষ্টিকর্তাসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

    ফেসবুকে দেয়া স্ট্যাটাসে তিনি উল্লেখ করেন- “আলহামদুলিল্লাহ। মহান আল্লাহর প্রতি শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। সীমাহীন কৃতজ্ঞতা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুযোগ্য জেলা প্রশাসক জনাব হায়াত-উদ-দৌলা খানঁ স্যারের প্রতি, স্যার আজ এ সম্মাননা প্রদানের মাধ্যমে আমাকে স্বীকৃতি প্রদান করেছেন।”

    তিনি আরও উল্লেখ করেন- “ধন্যবাদ জানাচ্ছি মাননীয় এমপি স্যারসহ সকল শ্রদ্ধেয় স্যার, সহকর্মী, শুভাকাঙ্ক্ষী, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, প্রিয় সাংবাদিকসহ নবীনগর উপজেলার সর্বস্তরের জনগণকে। যাদের ভালোবাসায় আজকের এ স্বীকৃতি।”

    এদিকে নবীনগর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম জেলার শ্রেষ্ঠ ইউএনও এর সম্মাননা লাভ করায় জনপ্রতিনিধি, সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন।

    নবীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মনির হোসেন, বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাক্তার আহমদ হোসেন, দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আবু কামাল খন্দকার, প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুব আলম লিটন, সার্বজনীন বহুমুখী কল্যাণ সংস্থার কর্ণধার মোহাম্মদ হোসেন শান্তি শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করে বলেন, নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুমকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার শ্রেষ্ঠ ইউএনও নির্বাচিত করে সঠিক কাজটি করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সম্মানিত জেলা প্রশাসক। কারণ মোহাম্মদ মাসুম ইতিমধ্যেই নবীনগরের উন্নয়নে যে ধরনের ভূমিকা রেখেছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়।

    উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইকবাল হাসান বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাসুম স্যারের এই অর্জনে আমি আনন্দিত। নবীনগরের আপামর জনতার জন্য স্যার যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তা সত্যিই অনুকরণীয়। স্যারের মত একজন উর্ধতনের সাথে কাজ করতে পেরে আমি গর্বিত এবং স্যারের কর্মদক্ষতা আমার ভবিষ্যৎ কর্মজীবনের পাথেয়।

    মোহাম্মদ মাসুম কুমিল্লা শহরের কালিয়াজুরির বড়বাড়ি আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসকান্দার আলীর ছেলে।

    তিনি নবীনগর উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের পর থেকে বিগত প্রায় পৌনে দুই বছরে ছিন্নমূল মানুষের উন্নয়ন, উপজেলার ভোলাচং এবং নাটঘর হরিজন সম্প্রদায়ের আবাসন প্রকল্প ব্যতিক্রমভাবে বাস্তবায়ন, ব্যতিক্রম ভাবে গুচ্ছগ্রাম প্রকল্প বাস্তবায়নসহ সরকারি নানা উন্নয়নমূলক কাজে নিজেকে একজন দক্ষ কর্মকর্তা হিসেবে প্রমাণ করতে পেরেছেন।

    মোহাম্মদ মাসুমের সফল্যে অত্যন্ত আনন্দিত তার পরিবারের সদস্যরা।

    তার পিতা মোহাম্মদ ইসকান্দার আলী বলেন, ভালো কাজের ফলাফল ভালো হয়, এটাই স্বাভাবিক। সবাই ভালো কাজ করুক এই প্রত্যাশা করি। তিনি তার ছেলের জন্য দোয়া কামনা করেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে nabinagar71.com