• শিরোনাম

    তাকে বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান

    দুরারোগ্য আক্রান্ত স্বপন মিয়া ও তার পরিবারের পাশে নবীনগরের ইউএনও 

    মো.মনির হোসেন | মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 345 বার

    দুরারোগ্য আক্রান্ত স্বপন মিয়া ও তার পরিবারের পাশে নবীনগরের ইউএনও 

    মোঃ স্বপন মিয়া,বয়স ৪৫ অথবা ৪৭ । স্ত্রী, তিন মেয়ে নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম বাজার সিএনজি স্টেশনে চা-পানের ছোট একটি ব্যবসা করে ভালোই চলছিল তার সংসার। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে হঠাৎ দুরারোগ্য লিভার সিরোসিস মরণব্যাধি এক রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রতিনিয়ত জীবন মরণের সাথে যুদ্ধ করে যাচ্ছেন তিনি। চিকিৎসা করতে গিয়ে হারিয়েছেন জমিজমা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ নগদ অর্থ। বয়ে বেড়াচ্ছেন এনজিও থেকে উত্তোলন করা ঋণের বোঝাও।

    স্বপন মিয়ার চিকিৎসা ও ঔষধের জন্য প্রতিদিন প্রায় হাজার টাকার দরকার । চিকিৎসক বলেছে দীর্ঘদিন উন্নত চিকিৎসা দেওয়া হলে তাকে সুস্থ্য করা সম্ভব। বর্তমানে তার সঠিক ও উন্নত চিকিৎসা করাতে কয়েক লক্ষ টাকার প্রয়োজন। নুন আনতে পান্তা ফুরানো এ পরিবারটির একমাত্র উপার্জন করার আকাশটিতে এখন কালো মেঘ জমেছে।

    সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের কল্যাণে জানতে পেরে তড়িৎগতিতে স্বপন মিয়ার সন্তানদের জন্য নতুন কাপড় চোপড়, শীত সহনীয় কম্বল এক মাসের খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ নিয়ে ছুটে গেলেন নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃএকরামুল ছিদ্দিক । এসময় তিনি তার তার পরিবারের সবাইকে সান্তনা দিয়ে একটি ঘর নির্মাণ করে দেওয়ার আশ্বাস প্রদান করেন।এবং স্বপন মিয়ার জীবন বাঁচাতে ও তার পরিবারের পাশে এগিয়ে আসার জন্য দেশে বিদেশের সকলের নিকট সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন এই শীর্ষ কর্মকর্তা।

    এ সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আমির হোসেন বাবুল, অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম সবুজ, স্বাস্থ্যকর্মী আলমগীর হোসেন আলম এবং প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    সকলের সহযোগীতা পেলে স্বপন মিয়া দুই বৎসরের মেয়ে তার বাবাকে ফিরে পাবে। মৃত্যুর মুখ থেকে তার স্ত্রী ফিরে পাবে তার ভবিষ্যৎ জীবনের এমটাই প্রত্যাশা স্থানীয়দের।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    নবীনগরে প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যা

    ১৫ অক্টোবর ২০২০ | 854 বার

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে