• শিরোনাম

    নবীনগরে দুই বখাটে মিলে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে ধর্ষণ

    নিজস্ব প্রতিবেদক | বুধবার, ২৩ মার্চ ২০২২ | পড়া হয়েছে 285 বার

    নবীনগরে দুই বখাটে মিলে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে ধর্ষণ

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার জিনদপুর গ্রামে তিন মাসের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে জোর করে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে ঐ গ্রামের বাসিন্দা দুই বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে। তারা হলেন উপজেলার জিনদপুর গ্রামের একাধিক অপরাধের হোতা সঞ্জয় মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (২০) ও কড়ইবাড়ি গ্রামের শাহ আলম এর ছেলে বাবু (১৯)।

     

     

    সরেজমিনে গিয়ে খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে সোমবার সকালে ওই গৃহবধূ পাশের গ্রামেই তার বাবার বাড়িতে জরুরি কাজে যাওয়ার জন্য রওয়ানা হলে সেই দুই যুবক সুমন ও বাবু নিজের সিএনজি করে তাকে রাস্তা থেকে নিয়ে যায়।

     

     

    কিছুক্ষণ পর তারা সেই গৃহবধূর বাবার বাড়িতে গিয়ে তার স্বামীর কথা বলে তাড়াতাড়ি তাদের সাথে যাওয়ার তাগিদ দিতে থাকেন ওই দুই যুবক। ওই গৃহবধূ সরল মনে তাদের সাথে দ্রুত সিএনজিতে উঠে স্বামীর বাড়িতে আসতেছিল।

     

     

     

    এক সময় সে যখন বুঝতে পারলো নির্দিষ্ট রাস্তা ছাড়া অন্য রাস্তায় যাচ্ছেন তখন সে তাদেরকে জিজ্ঞেস করেন যে তাকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ?

     

    কিছু উত্তর দেওয়ার আগেই তারা গৃহবধূকে চড় থাপ্পড় দিয়ে বলে ‘চুপচাপ দেখ কই নিয়ে যায়,বেশি পেন পেন করলে আজ রাতেই তোর জামাইকে জবাই করে হত্যা করাম’ এমন হুমকি দেয় বলে জানান ওই গৃহবধূ।

     

     

    কিছুটা সরল প্রকৃতির সেই গৃহবধূ ভয়ে তাদের কাছ থেকে বাঁচতে চুপচাপ মুখ বন্ধ করে চলছিল।

     

    এরই মধ্যে সিএনজি পাশ্ববর্তী মুরাদনগর উপজেলার কোন এক নির্জন এলাকায় নিয়ে তাকে মারধর করে এবং জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে এই ঘটনা কাউকে না জানানোর হুমকি দিয়ে গৃহবধূকে তার স্বামীর বাড়িতে এনে পৌঁছে দেন তারা।

     

     

    মঙ্গলবার পূনরায় রাতে ঐ গৃহবধূকে প্রস্তাব দিলে সে তার প্রতিবেশী এক মহিলার সাথে বিষয়টি শেয়ার করেন ওই গৃহবধূ। মূহুর্তের মধ্যেই এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন পুলিশের কাছে নিয়ে আসেন।

     

     

    খবর পেয়ে দ্রুত নবীনগর থানা পুলিশের সেকেন্ড অফিসার এস আই মনিরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে একটি দল অভিযানে নেমে দুই বখাটে কে রাতেই আটক করেন।

     

     

     

    সপ্তাহ না পেরোতেই জিনদপুর ইউনিয়নের জিনদপুর ও নীলনগর গ্রামে প্রতিবন্ধী ও অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় এলাকায় চরম অসন্তোষ দেখা দিচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

     

     

     

    তবে এই বিষয়ে নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আমিনুর রশীদ বলেছেন, দুটো ঘটনায় আমরা জড়িত ব্যক্তিদের ২৪ ঘন্টা না যেতেই গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগে দুই যুবককে আটক করে মামলা রুজু করা হয়েছে,বিজ্ঞ আদালতে তাদের সোপর্দ করা হচ্ছে। তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

     

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    নবীনগরে প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যা

    ১৫ অক্টোবর ২০২০ | 919 বার

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে