• শিরোনাম

    নবীনগরে টাকার অভাবে চিকিৎসা নিতে পারছে না বৃদ্ধা

    পাওনা টাকা চাওয়ায় বৃদ্ধা মহিলাকে মেরে হাসপাতালে

    মাহাবুব আলম লিটন | মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল ২০২০ | পড়া হয়েছে 157 বার

    পাওনা টাকা চাওয়ায় বৃদ্ধা মহিলাকে মেরে হাসপাতালে

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগরে সত্তর বছরের বয়সের এক অসহায় বিধবা বৃদ্ধা মহিলাকে পাওনা টাকা চাওয়ায় মেরে হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে । ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার(২০/০৪)রাতে উপজেলার রসুল্লাবাদ ইউনিয়নের লহড়ী গ্রামে।

    নবীনগর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি ওই অসহায় বৃদ্ধা মহিলার নাম মোসাম্মৎ আলেয়া খাতুন(৭০)স্বামী মৃত হোসেন মিয়া বাড়ি লহড়ী গ্রামের পূর্বপাড়ায়। পাওনা টাকা চাওয়ায় গ্রামের প্রভাবশালী মোতাহার মিয়ার ছেলে মো. শাহজাহান মিয়া ওই বৃদ্ধা মহিলাকে মারধর করেন ।

    জানা যায়, গ্রামের বৃদ্ধা অসহায় ওই বিধবা মহিলার একটি মাত্র ছেলে সে ভৈরব বাজারে চানাচুর বিক্রি করে। সে তার ছোট একটি কন্যা সন্তানকে ফেলে বহুদিন আগেই বাড়ি থেকে চলে যায়। মা সন্তানের কোন খোঁজ খবরই রাখে না । ক্ষুদ্র একখন্ড ভিটি বাড়িতে নাতিনকে নিয়ে কোনরকমে দিন যাপন করছেন ওই বৃদ্ধা।

    স্বামীর সঞ্চয়কৃত একমাত্র সম্বল ৫০ হাজার টাকা। বিগত ৫ বছর আগে ওই প্রভাবশালী শাহজাহান মিয়া পত্তনের উপরে এক বছরের জন্য ওই মহিলার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা ধার নেয়। কথা ছিল বছরে পত্তন বাবদ ৫০০০ টাকা ও আসলসহ এক বছর শেষে ৫৫হাজার টাকা দিবে।

    কিন্তু ওই প্রভাবশালী বৃদ্ধাকে অসহায় পেয়ে দেম দিচ্ছি করে বিগত ৫ বছর হয়ে গেল কোন টাকাই দিচ্ছেন না।ওই বৃদ্ধা টাকা ফেরত পাবার জন্য অনেকের ধারে ধারে ঘুরেছেন কিন্তু টাকা ফেরত পাননি। সর্বশেষ গত রাতে ওই বৃদ্ধা টাকা চাইতে তার বাড়িতে যান। টাকা চাওয়ায় উত্তেজিত হয়ে টাকা পাবে না বলে বৃদ্ধাকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়।

    স্থানীয় একটি সুত্র জানায়, ওই বৃদ্ধা মহিলা অনেকটা মানসিক ভারসাম্যহীন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শাহজাহান মিয়া অভিযোগটি সম্পূর্ন মিথ্যা ভিত্তিহীন দাবী করে বলেন, এ বৃদ্ধার সাথে আমার কোন লেনদেন নেই,বছর চার এক আগে ১০ হাজার টাকার একটা ক্ষুদ্র লেনদেন ছিল অনেক আগেই সেটা শেষ হয়ে গেছে,তাকে কে মেরেছে বা কি হয়েছে আমি কিছুই জানিনা,গ্রামের অনেকেই তাকে মারধর বিষয়টি অবগত নয়, আমি তাকে মারার কোন প্রশ্নই উঠে না,এটি আমার বিরুদ্ধে একটা চক্রান্ত ।

    নবীনগর হাসপাতালে টি,এইচ ও ডাক্তার হাবিবুর রহমান জানান,ওই বৃদ্ধার মাথায় অবস্থা প্রচন্ড খারাপ সিটি স্ক্যান করাতে হবে। বৃদ্ধা গরীব কোন টাকা পয়সা নেই, সেহেতু সে ঢাকা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া কোথাও যেতে পারছে না বিধায় হাসপাতলে ভর্তি রেখেই চিকিৎসা দিচ্ছি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    নবীনগরে ভুয়া ডাক্তার আটক

    ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | 8496 বার

    নবীনগরে অস্ত্র সহ গ্রেপ্তার ১

    ২৯ জানুয়ারি ২০১৮ | 3315 বার

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে nabinagar71.com